News

বিশ্বের দ্রুততম চার্জিং স্মার্টফোন এর তালিকা

দ্রুত চার্জ হয় এমন স্মার্টফোন প্রায় সবারই পছন্দ। তাই স্মার্টফোন ব্র‍্যান্ডগুলো কে কার চেয়ে অধিক ফাস্ট চার্জিং ফিচার প্রদান করতে পারে তা নিয়ে প্রতিযোগিতায় লিপ্ত। আর এরই মাদ্ধমে গ্রাহকদের কাছে পৌছে যাচ্ছে ফাস্ট চার্জিং স্মার্টফোন। এই পোষ্টে আমি দ্রুত চার্জ হয় এমন ১০টি স্মার্টফোন নিয়ে আলোচনা করব।

১। Xiaomi 11i Hypercharge

Xiaomi 11i Hypercharge ফোনটিতে রয়েছে ১২০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং ফিচার। এই ফোনটির নামই “হাইপারচার্জ”। এই নাম দেখেই বুঝা যায় ফোনটির মূল আকর্ষণ এর ফাস্ট চার্জিং। ফোনের বক্সে দেওয়া আছে ১২০ ওয়াট ফাস্ট চার্জার। এটি ব্যবহার করে ফোনটি মাত্র ১৫ মিনিটেই শূন্য থেকে ফুল চার্জ করা যাবে বলে দাবি করছে শাওমি। মিডিয়াটেক এর ডাইমেনসিটি ৯২০ ৫জি প্রসেসর দ্বারা চালিত ফোনটিতে রয়েছে ৬.৬৮ ইঞ্চির অ্যামোলেড স্ক্রিন, যা আবার ১২০ হার্জ রিফ্রেশ রেট সাপোর্টেড।

২। Xiaomi mi 10 Ultra

এই ফোনটি ১২০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্টেড। তবে এটি Xiaomi 11i Hypercharge এর মতো এত ফাস্ট নয়। এই ফোনটিতেও রয়েছে 4500 mAh এর ব্যাটারি, যেটি চার্জ হতে সময় লাগবে মাত্র ২৩ মিনিট।

৩। Xiaomi mi 11 Ultra

Xiaomi mi 11 Ultra রয়েছে ফাস্ট চার্জিং স্মার্টফোন এর তালিকায়। এতে আছে ৬৭ ওয়াট ফাস্ট চার্জার যেটি ব্যবহার করে Xiaomi mi 11 Ultra ফোনটির 5000 mAh ব্যাটারি ফুল চার্জ করা যাবে মাত্র ৩৬ মিনিটে। ফোনটিতে আবার ৬৭ ওয়াট ওয়্যারলেস চার্জিং সাপোর্ট রয়েছে যার সাহায্যে মাত্র ৪০ মিনিটের মধ্যেই ফোনটি ফুল চার্জ সম্ভব হবে।

৪। Oneplus 9 Pro

ওয়ানপ্লাস এর ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোন, Oneplus 9 Pro তে রয়েছে ৬৫ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং এবং এর পাশাপাশি ৫০ ওয়াট ওয়্যারলেস চার্জিং সাপোর্টেড। ৬৫ ওয়াট এর ফাস্ট চার্জার ব্যবহার করে ফোনটির 4500 mAh এর ব্যাটারি ৩০ মিনিটের মধ্যে শূন্য থেকে ফুল চার্জ করা সম্ভব। অন্যদিকে ওয়্যারলেস চার্জিং এর ক্ষেত্রে সময় লাগতে পারে ৪৩ মিনিটের মত।

৫। Huawei p50 pro

এই ফোনটি ৬৭ ওয়াট এর ফাস্ট চার্জিং সাপোর্টেড। ফুল চার্জ হতে সময় লাগবে মাত্র ৩৬ মিনিট। ৬.৬ ইঞ্চির ওলেড ডিসপ্লে ও ১২০ হার্জ রিফ্রেশ রেট ডিসপ্লের এই ফোনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ ৪জি প্রসেসর।

৬। Xiaomi redmi note 11 pro

শাওমি রেডমি নোট ১১ প্রো ফোনটি ৬৭ ওয়াট ফাস্ট চার্জার দ্বারা মাত্র ৩০মিনিটের মধ্যে শূন্য থেকে ফুল চার্জ হয়। শুধুমাত্র ফাস্ট চার্জিং এই ফোনটির মুল আকর্ষণ নয়। এতে আছে ১২০হার্জ রিফ্রেশ রেটের ৬.৬৭ইঞ্চির সুপার অ্যামোলেড ডিসপ্লে। রেডমি নোট ১১ প্রো ফোনটি চলবে মিডিয়াটেক এর হেলিও জি৯৬ প্রসেসর দ্বারা। ১০৮ মেগাপিক্সেল কোয়াড ক্যামেরা সেটাপ রয়েছে ফোনটিতে৷ কোয়াড ক্যামেরা সেটাপের মধ্যে একটি ১০৮মেগাপিক্সেল সেন্সর ও ৮মেগাপিক্সেল এর আলট্রাওয়াইড ক্যামেরা রয়েছে।

৭। Oppo find x 3 pro

ফাস্ট চার্জিং ফোনসমূহের তালিকায় Oppo find x3 pro রয়েছে। কারণ এর 4500 mAh ব্যাটারিটি বক্সে দেওয়া ৬৫ ওয়াট এর ফাস্ট চার্জার দ্বারা ৩০ মিনিটের ও কম সময়ের মধ্যে শূন্য থেকে ফুল চার্জ করা সম্ভব। এটি আবার ৩০ ওয়াট ফাস্ট ওয়্যারলেস চার্জিং সাপোর্টেড যা দ্বারা ফোনটি ৮০ মিনিটে ফুল চার্জ করা যাবে।

৮। Realme X50 Pro

সম্প্রতি ফাস্ট চার্জিং সাপোর্টেড ফোন বাজারে এনেছে রিয়েলমি। এর অংশ হিসেবে Realme X50 Pro ফোনটিতে দেখা মিলবে ৬৫ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সুবিধা। মাত্র ৩৫ মিনিটে Realme X50 Pro এর 4200 mAh এর ব্যাটারি ফুল চার্জ করা যাবে।

৯। Realme 8 Pro

Realme 8 Pro ফোনটি জনপ্রিয় হওয়ার একটি অন্যতম কারণ এর ফাস্ট চার্জিং। Realme 8 Pro ফোনটিতে থাকা 4500 mAh এর ব্যাটারিটি ৫০ ওয়াট চার্জার দ্বারা ৫০ মিনিটের ও কম সময়ের মধ্যে শূন্য থেকে ফুল চার্জ করা সম্ভব হবে।

১০। Vivo v23 pro

Vivo v23 pro ফোনটি ও স্থান করে নিয়েছে দ্রুত চার্জ হয় এমন ফোনের তালিকায়। Vivo v23 pro ফোনটিতে রয়েছে 4300 mAh এর ব্যাটারি। ফোনের বক্সে থাকা ফাস্ট চার্জার দিয়ে শূন্য থেকে ৬৩% চার্জ করা যাবে মাত্র ৩০ মিনিট সময়ের মধ্যে এবং এক ঘন্টার কম সময়ে ফোনটি শূন্য থেকে ফুল চার্জ করা যাবে।

Leave a Reply

Back to top button