Troubleshooting

মোবাইল ফোন অতিরিক্ত গরম হওয়ার কারণ ও তার সমাধান

মোবাইল ফোন গরম হওয়া খুবই সাধারন একটি ব্যাপার। তবে ফোন অতিরিক্ত গরম হয়ে গেলে তা দুঃশ্চিতার কারণ হয়ে দাড়ায়। আজকের এই পোস্টে আপনি জানতে পারবেন, ফোন অতিরিক্ত গরম হওয়ার কারণসমূহ এবং ফোন অতিরিক্ত গরম হওয়া থেকে রক্ষা পেতে করণীয়।

ফোন গরম হওয়ার কারণসমূহ

১। ফোনের ব্যাকগ্রাউন্ডে অনেকগুলো অ্যাপ চলতে থাকা।

২। দীর্ঘ সময় ধরে অতিরিক্ত ফোন ব্যবহার করা।

৩। ফোন ১০০% চার্জ হওয়ার পর ও ফোন চার্জে ফেলে রাখা।

৪। ফোনের ব্রাইটনেস সবসময় ম্যাক্স করে রাখা।

ফোনের ভেতরের তাপমাত্রা নির্ভর করে ফোনের ব্যবহার ও পরিপার্শ্বিক অবস্থার উপর। ফোন যদি অতিরিক্ত গরম হয়ে যায় তাহলে স্বাভাবিকের চেয়ে ধ্রুত ব্যাটারি শেষ হয়, স্লো হয়ে যায়, ফোর্স শাটডাউন, ইত্যাদি সমস্যা দেখা দেয়। মাত্রাতিরিক্ত গরম হওয়ার ফলে ফোনের সিপিইউ গলে যাওয়ার মত অসম্ভব ঘটনাও ঘটতে পারে।

ওভারহিটিং এর কারণে যদি ফোন বন্ধ হয়ে যায়, তবে ফোন আর চালু না ও হতে পারে। আপনি যদি অসংখ্য অ্যাপ ব্যাকগ্রাউন্ডে ফেলে রাখেন (অর্থাৎ ক্লিয়ার করেন), তবে মারাত্মক ব্যাটারি ড্রেইনের শিকার হবেন। অতিরিক্ত ফোন গরম হওয়ার পেছনে মূল কারণ হলো এই ব্যাকগ্রাউন্ডে দীর্ঘ সময় ধরে ফেলে রাখা অসংখ্য অ্যাপ।

দীর্ঘ সময় ধরে অতিরিক্ত ফোন ব্যবহার করলে ও ফোন অতিরিক্ত গরম হতে পারে। ফোন অতিরিক্ত ব্যবহারের ফলে ফোনের ব্যাটারির উপর স্বাভাবিকের চেয়ে অধিক চাপ পড়ে বলে ফোন গরম হয়ে যায়।

ফোন ১০০% চার্জ হওয়ার পর ফোন চার্জে রাখাও স্মার্টফোন অতিরিক্ত গরম হওয়ার পেছনে আরেকটি কারণ হতে পারে। তবে বর্তমানে এটি খুব কমই দেখা যায়। কারণ বর্তমানে স্মার্টফোনগুলোতে সেফ চার্জিং প্রযুক্তি থাকায় ফোন ফুল চার্জ হওয়ার পর পাওয়ার ট্রান্সফার অটোমেটিক বন্ধ হয়ে যায়।

উল্লিখিত এক বা একাধিক কারণে ফোন ওভারহিট বা অতিরিক্ত গরম হতে পারে। এবার জেনে নেওয়া যাক কিভাবে অতিরিক্ত গরম হওয়ার হাত থেকে আপনার প্রিয় স্মার্টফোনটিকে রক্ষা করবেন।

ফোন অতিরিক্ত গরম হওয়া থেকে রক্ষা পেতে করণীয়

ফোন অতিরিক্ত গরম হওয়া থেকে রক্ষা পেতে আপনি বিভিন্ন পদক্ষেপ নিতে পারেন। যেমনঃ

স্ক্রিন ব্রাইটনেস অপটিমাইজ করা

যদিও বর্তমানে ফোনের ব্রাইটনেস ফোনের একটি সেলিং ফিচার হয়ে দাঁড়িয়েছে, তবুও দরকার ছাড়া ফোনের ব্রাইটনেস ফুল করে রাখা উচিত নয়। এতে করে ফোন ওভারহিট হতে পারে এবং এটি ব্যাটারি ড্রেইনের ও কারণ হতে পারে। অর্থাৎ ফোন অতিরিক্ত গরম হওয়া থেকে রক্ষা পেতে ফোনের ব্রাইটনেস কমিয়ে রাখুন। আরো ভালো হয় “Auto Brightness” ফিচারটি চালু রাখলে যা আশেপাশের পরিবেশের লাইটিং এর উপর ভিত্তি করে ফোনের ব্রাইটনেস নিজ থেকে এডজাস্ট করে নেয়।

অব্যবহৃত অ্যাপ ক্লোজ বা আনইন্সটল করা

অতিরিক্ত ব্যাকগ্রাউন্ড প্রসেস, স্পাই অ্যাপ, হেভি ব্যান্ডউইথ ইউজ, ইত্যাদির কারণেও ফোন অতিরিক্ত গরম হতে পারে। তবে অব্যবহৃত অ্যাপ টাস্ক ম্যানেজার থেকে ক্লিয়ার করে দেওয়া ফোন গরম হওয়া রোধ করতে পারে। আপনি চাইলে অপ্রয়োজনীয় অ্যাপগুলো আনইন্সটল করে দিতে পারেন, এতে করে ফোন ভালো থাকবে।

ফোনের র‍্যাম বেশি না হলে এবং অব্যবহৃত অ্যাপ ব্যাকগ্রাউন্ডে ফেলে রাখলে একটিভ অ্যাপ চালানোর সময় ফোন ওভারহিট হয়। তাই ব্যবহার না করলে ব্যাকগ্রাউন্ডে থাকা অ্যাপসমূহ টাস্ক ম্যানেজার থেকে ক্লিয়ার করে দিন

হেভি গেমিং কমানো

বর্তমানে স্মার্টফোন কেনার পেছনে গেমিং একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। এমনকি বাড়তি ফিচারযুক্ত শুধুমাত্র গেমিং ফোন ও বাজারে রয়েছে। তবে যে ফোনেই গেমিং করা হোক না কেনো, ৫-৬ ঘণ্টা টানা গেম খেললে ফোন গরম হবেই।

বর্তমানে বেশিরভাগ গেম যেমন (ফ্রি ফায়ার, পাবজি) হাই গ্রাফিক্সের হয়ে থাকে বলে এসব চলতে বেশ হাই পাওয়ার এর প্রয়োজন হয়। এগুলো খেলার সময় সিপিইউ এবং জিপিইউ, উভয়ই সর্বোচ্চ ব্যবহৃত হয় বলে দীর্ঘ সময় ধরে গেম খেললে ফোন গরম হতে দেখা যায়।

অর্থাৎ আপনি যদি দীর্ঘ সময় ধরে পাবজি, কল অফ ডিউটি এর মত হাই গ্রাফিক্স গেমসমূহ খেলে থাকেন, তবে আপনার ফোন গরম হওয়াটা স্বাভাবিক। তাই ফোনের উপর প্রেসার কমাতে গেমিং এর মাঝে বিরতি রাখতে পারেন। উল্লেখ্য যে গেম খেলার সময় আপনার আশেপাশের তাপমাত্রাও ফোনের তাপমাত্রার উপর প্রভাব ফেলে।

ঠিকভাবে ফোন চার্জ করা

চার্জে থাকা অবস্থায় ফোন গরম হওয়া স্বাভাবিক ব্যাপার। তবে অত্যাধিক পরিমাণে গরম হলে বুঝে নিতে হবে কোনো সমস্যা আছে মোবাইলে।

তাই মোবাইল ফোন অতিরিক্ত গরম হওয়া এড়াতে সবসময় ফোনের বক্সের সাথে দেওয়া চার্জারটিই ব্যবহার করবেন। এই অরিজিনাল চার্জার হারিয়ে ফেললে বা নষ্ট হয়ে গেলে ভালো ব্র‍্যান্ডের চার্জার সংগ্রহ করুন।

এছাড়াও যে রুমে ফোন চার্জ দিচ্ছেন, সে রুমের তাপমাত্রাও নিয়ন্ত্রণে থাকলে ভালো হয়। উল্লেখ্য যে চার্জারে যদি কোনো ধরনের ত্রুটি থাকে তাহলেও কিন্ত ফোন এবং চার্জার উভয়ই গরম হতে পারে।

ব্যাটারি চেক করা

ফোনের মাত্রাতিরিক্ত গরম হওয়ার পেছনে ব্যাটারিও দায়ী হতে পারে। যদি ফোনের ব্যাকপার্ট ওভারহিট হয়, তবে বুঝে নিতে হবে ফোনের ব্যাটারিতে কোনো ত্রুটি রয়েছে। যদি ফোনের ব্যাকপার্ট অতিরিক্ত গরম হয়, তবে অভিজ্ঞ টেকনিশিয়ান এর সাহায্য নিন। প্রয়োজনে ব্যাটারিটি রিপ্লেস করে নিন। নষ্ট বা ত্রুটিযুক্ত ব্যাটারি বিভিন্ন ধরনের সমস্যা বয়ে আনতে পারে, তাই এই ব্যাপারটিকে একেবারেই অবহেলা করা উচিত নয়।

অ্যাপ ও সিস্টেম আপডেটেড রাখা

ফোনে ইন্সটল থাকা অ্যাপ ও সিস্টেম এ বিভিন্ন ধরনের বাগ (Bug) বা ত্রুটি থাকে, যা আপডেটের মাধ্যমে সমাধান করে নির্মাতা প্রতিষ্ঠানসমূহ। বাগ (Bug) বা ত্রুটি যুক্ত অ্যাপ ফোন গরম হওয়ার পেছনে দায়ী থাকতে পারে। তাই নিয়মিত অ্যাপসমূহ ও ফোনের সিস্টেম আপডেট করা খুব জরুরি।

Leave a Reply

Back to top button