Guides & Tips

মোবাইল রেডিয়েশন থেকে বাঁচার উপায়

মোবাইলের রেডিয়েশন থেকে বাঁচা খুব জরুরি কারণ এটি আমাদের শরীরের বেশ ক্ষতিসাধন করে থাকে। একটি মোবাইলের রেডিয়েশন 2.0 w/kg এর নিচে থাকলে সেই ফোনটি নিরাপদ আর ফোনের রেডিয়েশন যদি 2.0 w/kg এর বেশি হয় তাহলে এই ফোনটি ক্ষতিকর। আপনার ফোনের রেডিয়েশন কত এটি দেখার জন্য ডায়াল করুন *#07#

মোবাইল ফোনের জন্য যে নেটওয়ার্ক থাকে, তার একটি ম্যাগনেটিক ফিল্ড বা চৌম্বক ক্ষেত্র থাকে। আর ব্যবহারকারী সেই ক্ষেত্রের আওতায় থাকলে ফোন এর নেটওয়ার্ক কাজ করে থাকে। এর সঙ্গে থাকে ইন্টারনেট সংযোগ । যার থেকে একটি তেজস্ক্রিয় চৌম্বকযুক্ত wave রেডিয়েশন বা বিকিরণ মানুষের ক্ষতি করে থাকে ।

মোবাইল রেডিয়েশন থেকে বাঁচার উপায়

নিজের শরীর থেকে একটা নূনতম দূরত্ব বজায় রেখেই মোবাইল ফোনে কথা বলুন। 

ফোনে কথা বলার সময় চেষ্টা করুন হেডফোন কিংবা ব্লুটুথ ব্যবহার করার। 

ফোন কলের পরিবর্তে ব্যবহার করুন এসএমএস এবং ভয়েস ম্যাসেজ। 

মোবাইল ফোন স্পিকার মোডে রেখে কথা বলুন। 

মোবাইল ফোনের সীমিত ব্যাবহারঃ ফোন কানে নিয়ে ঘন্টার পর ঘন্টা কথা বলা আজ থেকে বন্ধ করুন। পারলে একটি কল ডিউরেশন সেট করে দিন যাতে নির্দিষ্ট সময় পর একাই কলটি কেটে যায়।

আবদ্ধ এবং ধাতব ক্ষেত্রে ব্যবহার না করাঃ আবদ্ধ ঘরে , ছোট্ট ফ্লাট-এর রুম-এ কিংবা জানলা বন্ধ করে গাড়িতে বেশি কথা বলা যবে না। লিফটে ফোন চলাকালীন রেডিয়েশনের তীব্রতা প্রতিফলিত হয়ে শরীরে বেশি প্রতিক্রিয়া করে থাকে।

দুর্বল নেটওয়ার্ক আর Low battery তে মোবাইল ফোন ব্যবহার না করাই ভালো কারণ মোবাইলে ব্যাটারি কম থাকলে উচ্চ মাত্রায় রেডিয়েশন নির্গত হয়। তাই খুব জরুরি না হলে এই অবস্থায় ফোন ব্যবহার না করা।

তাহলে কী করব ? বর্তমানে একটি ডিভাইস তৈরি হয়েছে যার নাম Anti-radiation chip। এটি আপনাকে ক্ষতিকর রেডিয়েশন থেকে বাঁচাবে। তবে মনে রাখবেন যতদিন না বিজ্ঞানসম্মত ভাবে এগুলির কার্যকারিতা প্রমাণিত হচ্ছে , এগুলোর উপর ভরসা না করাই ভালো।

Leave a Reply

Back to top button